লং ডিস্টেন্স ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের পেটেন্ট নিয়েছে হুয়াওয়ে

 

ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি এখন অনেকটাই স্মার্টফোন দুনিয়া দখলে নিয়েছে। বর্তমানে প্রায় সকল প্রিমিয়াম স্মার্টফোনেই ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি দেখা যায়। তবে উদ্ভাবনী আধুনিক প্রযুক্তিকে আরো এক ধাপ সামনে এগিয়ে নিতে সম্প্রতি লেজার বেসড ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির প্যাটেন্ট ফাইল করেছে চাইনিজ টেক জায়ান্ট হুয়াওয়ে। হুয়াওয়ের নতুন এই প্রযুক্তিটির সাহায্যে অনেক দূর (লং ডিস্টেন্স) থেকেই ওয়্যারলেস ভাবে স্মার্টফোন চার্জ করতে সক্ষম হবে ইউজাররা।

ওয়্যারলেস চার্জিং

হুয়াওয়ের ফাইল করা পেটেন্টটিতে দেখা যাচ্ছে, নতুন এই প্রযুক্তিতে মূল চার্জারটি অনেকটা বাল্ব/লাইট এর মতো দেয়ালে কিংবা ছাদে মাউন্ট করা থাকবে। এটি অন করার সাথে সাথে অদৃশ্য লেজার এর মাধ্যমে কাছাকাছি থাকা সাপোর্টেড ডিভাইসকে চার্জ করতে পারবে এই ওয়্যারলেস চার্জারটি। লেজার রেঞ্জের মধ্যে থাকা একাধিক ডিভাইজ একসাথে চার্জ করা যাবে এই প্রযুক্তিতে।

 

হুয়াওয়ের মতে, এই লেজার মানুষ বা পোষা প্রানীর স্বাস্থ্যের উপর যাতে কোনো প্রভাব না ফেলে সেদিকেও নজর দিচ্ছে তারা। যদিও আপাতত এই ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির নাম এখনো ঠিক করেনি হুয়াওয়ে। তবে এটি যে স্মার্টফোন চার্জিং এর একটি যুগান্তকারী আবিষ্কার তাতে কোনো সন্দেহ নেই। মর্ডার্ন যুগে দিনকে দিন স্মার্টফোন আকার আকৃতিতে আরো পাতলা হচ্ছে কিন্তু ব্যাটারিতে তেমন উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন আসছে না।

তাই বেশিরভাগ সময় ব্যাটারির ক্যাপাসিটি কমিয়ে ফোনের থিকনেসকমানোর চেষ্ঠা করে থাকেন স্মার্টফোন মেনুফেকচারাররা। তাছাড়া সবসময় সাথে পাওয়ার ব্যাংক বা চার্জার বহন করাও সম্ভব না ইউজারদের। এক্ষেত্রে হুয়াওয়ের ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির এই যুগান্তরকরি পরিবর্তনটি সবথেকে বেশি কার্যকরী হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। হুয়াওয়ের এই প্রযুক্তি ঠিক কখন বাজারে আসবে, কিংবা কবে নাগাদ গ্রাহকদের জন্য উপলব্ধ হবে তা এখনো জানা যায়নি।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post