অনুমতি ছাড়া ইউজারদের ক্যামেরা ব্যবহার করছে ইন্সট্রাগ্রাম

 

ফেসবুকের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ নতুন কিছু নয়। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি নতুন অভিযোগ এসেছে ফেসবুক মালিকানাধীন ফটো শেয়ারিং প্লাটফর্ম ইনস্টাগ্রাম এর বিরুদ্ধে। অভিযোগ উঠেছে, ইউজারদের অনুমতি ছাড়াই গোপনে ফোনের ক্যামেরায় আ্যক্সেস নিয়ে নজরদারি করছে ইনস্টাগ্রাম। নিয়ে সব কিছুই দেখছেবলা হচ্ছে, ইনস্টাগ্রাম অ্যাপের সাহায্যে ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে রীতিমত ভিডিও নজরদারি বা একরকম গোয়েন্দাগিরি করা হচ্ছে!

ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে ইউজাররা বলছেন, অ্যাপটি ব্যবহার করার সময় অনিচ্ছাকৃতভাবে ফোনের ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে তাদের ছবি তুলে নিচ্ছে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে সান ফ্রান্সিসকোর ফেডেরাল কোর্টে ব্রিটানি কন্ডিটি নামের একজন ইনস্টাগ্রাম ইউজার জানান, ক্যামেরার ব্যবহার ইচ্ছাকৃত ভাবে করা হয়েছে ইউজারদের গুরুত্বপূর্ণ মূল্যবান ও লোভনীয় ডাটা চুরির জন্য।

 

যদিও এ অভিযোগের ব্যাপারে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। তবে নজরদারির ব্যাপারটি অস্বীকার করলেও দায় পুরোপুরি এড়িয়ে যায়নি। এ ধরনের ঘটনার জন্য তারা বাগ বা কারিগরি ত্রুটিকে দায়ী করেছে। এবারই প্রথম নয়, এর আগে গত জুলাই মাসেও ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল যে, অনুমতি ছাড়াই ব্যবহারকারীদের ফেস ডাটা অ্যানালাইসিস করছিলো তারা।

যদিও বরাবরের মতো সেইসময় ফেসবুক এই অভিযোগ অস্বীকার করে এবং জানায় ইন্সটাগ্রাম কখনোই ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে না। বরং বলে, নতুন একটি বাগের কারণেই আইফোন ব্যবহারকারীরা ভুল নোটিফিকেশন পাচ্ছেন। পরবর্তীতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের তা নজরে আসার পরপরই তা ঠিক করে ফেলে এবং এতে কোনো ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয়নি বলে জানানো হয়।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂

ক্রেডিট 




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post