৮০ ওয়াট ওয়্যারলেস ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি অ্যানাউন্স করেছে শাওমি

 

উদ্ভাবনের দিকে অন্যান্য স্মার্টফোন ম্যানুফাকচারারদের তুলনায় সবসময়ই এক ধাপ এগিয়ে থাকে চাইনিজ  জায়ান্ট শাওমি। বিশেষ করে মোবাইল চার্জিং প্রযুক্তিতে এক বৈপলৱীক পরিবর্তন এনে যাচ্ছে শাওমি। চলতি বছরই শাওমি অ্যানাউন্স করেছিল বিশ্বের প্রথম ১০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি। ব্যত্যয় ঘটে নি এবারো। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি ঘোষণা দিয়েছে ৮০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির।

এটি এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত ওয়্যারলেস চার্জিং টেকনোলজি সলিউশন। যা শাওমির তৃতীয় বড় ওয়্যারলেস চার্জিং টেকনোলজি। শাওমির দাবি, নতুন ৮০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের সাহায্যে মাত্র ১৯ মিনিটে ফুল চার্জ করা যাবে ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। একটি উইবো পোস্টে শাওমি নিশ্চিত করেছে, তাদের নতুন ওয়্যারলেস চার্জিং সলিউশনটি মাত্র ৮ মিনিটে ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির ফোনকে ০-৫০ শতাংশ চার্জ করতে সক্ষম হবে।

 

এছাড়া একই ক্যাপাসিটির ব্যাটারী ফুল চার্জ হতে সময় নেবে ১৯ মিনিট। যদিও কোন ফোনে সর্বপ্রথম এই চার্জিং টেকনোলজি ব্যবহার করবে তা জানায়নি শাওমি। প্রসঙ্গত গত আগস্টেই লঞ্চ করেছিল ৫০ ওয়াট ফাস্ট ওয়্যারলেস চার্জিং টেকনোলজি সমৃদ্ধ Mi 10 Ultra। যেটি ছিল শাওমির এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে দ্রুত চার্জিং সলিউশন। এর আগে গত মার্চে সর্বপ্রথম ৪০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং টেকনোলজি অ্যানাউন্স করেছিল শাওমি।

চার্জিং প্রযুক্তিতে শাওমির এতো অগ্রগতির মূল কারণ হচ্ছে, শাওমি ফাস্ট চার্জিং সলিউশন নিয়ে ‘আর এন্ড ডি’ (রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্টে) বিপুল পরিমান অর্থ এবং বৃহৎ একটি সময় ব্যয় করেছে শাওমি। একসময় ৭.৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টের সাথে বাজারে এসেছিলো শাওমির Mi Mix 2s। পরবর্তীতে Mi Mix 3’তে ১০ ওয়াট ও Xiaomi Mi 9 লঞ্চ হয়েছিল ২০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টের সাথে। এরই ধারাবাহিকতায় খুব শীগ্রই ১০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমৃদ্ধ স্মার্টফোন বাজারে আনতে যাচ্ছে শাওমি।

বন্ধুদের সাথে পোস্টটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post