উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে পাবজি মোবাইলের ডাউনলোড

 

জনপ্রিয় অনলাইন মোবাইল ব্যাটলফিল্ড গেইম পাবজি বর্তমানে বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। ভারত চীনের কূটনৈতিক সম্পর্কে অবনতির প্রভাব পড়েছে চীনা অ্যাপগুলোর ওপর, যার মধ্যে পাবজি মোবাইল-টিকটক অন্যতম। তাছাড়া পাবজির জন্য ভারতের বাজার ছিল সোনার ডিম পারা হাঁসের মতো। কেননা গেমটির বৈশ্বিক বাজারের প্রায় ২৪ ভাগ শেয়ার ছিল ভারতে। যার ফলে আশঙ্কা করা হচ্ছে, নিষেধাজ্ঞা কারণে বৈশ্বিক বাজারে মুখ থুবড়ে পড়েছে পাবজি মোবাইলের।

পাবজি মোবাইল

নিষেধাজ্ঞার প্রভাবে ধীরে ধীরে নিম্নমুখী হচ্ছে গেমটির ডাউলোড রেশিও। রিপোর্ট অনুযায়ী, গতমাসের ভারতে পাবজি নিষিদ্ধ হবার পর থেকে বর্তমানে গেমটির ডাউনলোড প্রায় ২৬.৭ শতাংশ পর্যন্ত কমে এসেছে। যেখানে আগস্টে পাবজির ডাউনলোড ছিল ১৪.৬ মিলিয়ন, তা সেপ্টেম্বরে কমে দাঁড়িয়েছে ১০.৭ মিলিয়ন। তবে চলমান করোনা মহামারীর মধ্যে পাবজি মোবাইলের ডাউনলোড অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছিল, যা জুন ও জুলাই মাসে যথাক্রমে ছিল ১৮ মিলিয়ন ও ২৫ মিলিয়ন।

 

অন্যদিকে বিশ্লেষকদের মতে, গেমটির ডাউনলোডের হার কিছুটা কমলেও ভারত নিষেধাজ্ঞা পাবজি মোবাইলের আয়কে উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত করতে পারেনি। কেননা পাবজি মোবাইলের জন্য ভারত একটি বিশাল ইউজারদের-বেজ মার্কেট হয়ে থাকলেও গেমটির সামগ্রিক আয়ের তুলোয় কম অবদান রাখে ভারত। পাবজি মোবাইল মূলত সবচেয়ে বেশি আয় করে থাকে চীন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং জাপানের মতো দেশগুলো থেকে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, চলতি বছরের আগস্টে গেমের ইন-অ্যাপ পারচেজ থেকে ২২১ মিলিয়ন ডলার আয় করেছিল পাবজি মোবাইল, যার৬৯% আয় গেমটির চীনা সংস্করণ “গেম অফ পিস” থেকে প্রাপ্ত, থেকে এসেছে। তবে ভারত এখনো গুরুত্বপূর্ণ বাজার হিসাবে রয়ে যাওয়ায় ডেভেলপাররা টেনসেন্ট থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নিচ্ছেন এবং ভারতীয় বাজারে প্রবেশের জন্য ভারতীয় অংশীদারিত্বের সন্ধানে রয়েছেন।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post