ডিউরেবলিটি টেস্টে পাশ করেছে Galaxy Z Fold 2!

 

স্মার্টফোন ডিউরেবলিটি টেস্টের জন্য ইউটিউবে JerryRigEverything চ্যানেলের হোস্ট জ্যাক নেলসন বেশ জনপ্রিয়। ভিউয়ার্সদের চাহিদা অনুসারে প্রায় সকল প্রিমিয়াম স্মার্টফোনের উপরই কঠোর নির্যাতন করে ডিউরেবলিটি পরীক্ষা করে থাকনে জ্যাক নেলসন। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি স্যামসাংয়ের লেটেস্ট ফোল্ডিং স্মার্টফোন Galaxy Z Fold 2 এর ডিউরেবলিটি টেস্ট করেছেন তিনি। আশ্চর্যজনকভাবে ফোনটি তার নির্যাতনে ভালোভাবে পাশ করে গিয়েছে।

যদিও গত বছরের Galaxy Z Fold ফোনটিও কোনোমতে পাশ করেছিলো জ্যাক নেলসন এর ডিউরেবলিটি টেস্টে। ২০২০ সালে এসে Galaxy Z Fold 2’তে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছে স্যামসাং। ফোনটির ডিসপ্লে থেকে ট্রিপল ক্যামেরা নচ সরিয়ে কেবল একটি পাঞ্চহোল ক্যামেরা দিয়ে স্যামসাং। তাছাড়া পূর্বের জেনারেশনের তুলনায় কব্জার (হিঞ্জ) মেকানিজমেও অনেক ইমপ্রুভমেন্ট আনা হয়েছে বলে দাবি প্রতিষ্ঠানটির।

 

স্যামসাং জানিয়েছে নতুন ফোল্ডিং ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ইউটিজি (আল্ট্রা থিন গ্লাস) কভার। যার সত্যতা দেখা গিয়েছে JerryRigEverything চ্যানেলের ডিউরেবলিটি টেস্টে। ভিডিওতে দেখানো হয়েছে, এবার Galaxy Z Fold 2’তে এবার কোনোরকম ধুলোবালি যেতে পারেনি, তবে ডিসপ্লেতে এখনো সহজেই নখের আঁচড় রয়ে যাচ্ছে। যা অবশ্যইপূর্বের Galaxy Z Fold এর তুলনায় কম। তাছাড়া সবথেকে বড় কথা হলো, Galaxy Z Fold 2 এবার জ্যাক নেলসনের বিখ্যাত (কিংবা কুখ্যাত!) “Bend Test” থেকে বেচে ফিরেছে।

কেননা ডিউরেবলিটি টেস্টে “Bend Test” ধাপে এসে OnePlus Nord ও iPad Pro 2020 ভেঙে গিয়েছিলো, কিন্ত স্যামসাংয়ের ফোল্ডেবল স্মার্টফোনটি পাশ করেছে। দূর্ভাগ্যবশত স্মার্টফোনটির সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি “Scratch Test” এর পর আর কাজ করেনি। পুরো ভিডিওতে কেবল একটিই নেতিবাচক দিক বলা যায় একে। আশা করা যায় স্যামসাং পরবর্তী ফোল্ডেবল স্মার্টফোনে এই দিকটি খেয়াল রাখবে।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post