পৃথিবীতে বাড়ছে অব্যবহৃত মোবাইল ফোনের ভয়াবহতা

 

দিনকে দিন প্রযুক্তির সহজলোভ্তার কল্যানে বর্তমানে নতুন স্মার্টফোন কেনা এখন অনেকটাই ডালভাতের মতো ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে সাধারণ মানুষের কাছে। আধুনিক প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে চলতে আমরা এখন গড়ে ২ বছর পরপরই পুরনো স্মার্টফোন পালটে ফেলি। অনেকে তাদের পুরনো ফোনটিকে বিক্রি করলেও বেশিরভাগই আবার পুরোনো ফোনের কোনো খোঁজ রাখে না আর। ফোনটি বেশি পুরনো হয়ে গেলে সেটিকে হয়তো ঘরের কোনো এক কোনায় কিংবা ওয়েস্টেজে আশ্রয় নিতে হয়।

মোবাইল ফোনে

কিন্তু আমরা কখনো কি চিন্তা করে দেখেছেন যে, পুরনো ফোনটি সঠিকভাবে ডিসপোজ / রিসাইকেল করেছি কিনা আমরা ? সম্প্রতি জার্মান ইলেকট্রনিক স্টোর reBuy একটি সমীক্ষায় জানিয়েছে, বর্তমানে পৃথিবীতে প্রায় ২৪,৯৬৪ টন মোবাইল ফোন অব্যবহৃত অবস্থায় পরে আছে। যা প্রায় ৫৪ টি বোয়িং 747-8 বিমান বা ১৩৮ টি নীল তিমির ওজনের সমান। সংস্থাটি জানিয়েছে, সুইডেনে মাথাপিছু অব্যবহৃত ফোনের সংখ্যা গড়ে ১.৩১ টি। অর্থাৎ সেখানে মোট জনসংখ্যার থেকে অব্যবহৃত ফোনের সংখ্যা বেশি।

 

অব্যবহৃত স্মার্টফোন, গ্যাজেট কিংবা ইলেক্ট্রনিক পণ্যকে ই-বর্জ্য বলা হয়। যদিও ই-বর্জ্য এর পরিধি আরো অনেক বিশাল। তবে মর্ডার্ন যুগে স্মার্টফোনই তার একটা বড় অংশ দখল করে আছে। ই-বর্জ্য এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত পণ্যগুলোতে তামা, অ্যালুমিনিয়াম, প্লাস্টিক ছাড়াও দামী ধাতু যেমন স্বর্ণ, রুপা, প্লাটিনাম, প্যালাডিয়াম অন্যদিকে ব্যাটারি’তে থাকা লিথিয়াম এর মতো দুর্লভ মৌলের বিশাল সংগ্রহ রয়েছে, যার মূল্য প্রায় ১.২ বিলিয়ন ডলার। এটা কেবল স্মার্টফোনের তথ্য।

সারা বিশ্বে স্মার্টফোন ছাড়াও গেমিং কনসোল, হোম অ্যাপ্লায়েন্স, মিডিয়া প্লেয়ার ও সাউন্ডসিস্টেম কিংবা ছোট-খাটো গ্যাজেট যেমনঃ ইয়ারফোন ও চার্জার এর মতো অনেক ইলেকট্রনিক বর্জ্য রয়েছে, যা নিরসনে এই মূহুর্তে কোনো পদক্ষেপ না নিলে ভবিষ্যতে ভয়ানক দুর্যোগের মুখোমুখি হতে হবে আমাদের। যদিও ইতোমধ্যে মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল ই-বর্জ্য ধূষণ কমানে নতুন আইফোনের বক্স থেকে চার্জার ও এয়ারপড সরিয়ে নিয়েছে। এছাড়া স্যামসাং ও মটোরোলার মতো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোও এ বিষয়ে বিশেষ নজর দিচ্ছে।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂

ক্রেডিট




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post