ভারতে নতুন নামে ফিরছে পাবজি মোবাইল!

 

গত সেপ্টেম্বরের শুরুতে প্রায় দুইমাস আগে ভারত ও চীনের মদ্ধকার দ্বন্দ্বের কারণে ভারতে নিষিদ্ধ করা হয় জনপ্রিয় মাল্টিপ্লেয়ার অনলাইন ব্যাটলফিল্ড গেইম পাবজি মোবাইল। এরপর অক্টোবরের ৩০ তারিখ ভারতে PUBG Mobile এবং PUBG Mobile Lite গেমদুটির সমস্ত পরিষেবা বা অ্যাক্সেস বন্ধ করে দেয় গেমটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। তবে এবার সম্ভবত আশার বাণী পেতে যাচ্ছে পাবজি প্লেয়াররা। সম্প্রতি একটি প্রেস রিলিজে অফিসিয়ালি নিশ্চিত করা হয়েছে, ভারতে শীগ্রই নতুনরুপে কামব্যাক করছে পাবজি মোবাইল। জানা যায়, ১০০ মিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগে বিশেষ করে ভারতের জন্য পূর্বের পাবজি গেমের আদলে “PUBG Mobile India” নামের নতুন একটি গেম তৈরি করেছে পাবজি কর্পোরেশন।

পাবজি মোবাইল

মূলত ভারত সরকার কর্তৃক গোপনীয়তা ও নীতিমালা অনুসরণ করে ভারতে পুনরায় লঞ্চ করা হবে গেমটি। তাই ইউজারদের ডেটার সুরক্ষা নিশ্চিত করতে টেনসেন্টের পরিবর্তে এবার মাইক্রোসফ্টের সাথে পার্টনারশিপ করেছে পাবজি কর্পোরেশনের প্যারেন্ট কোম্পানি ‘ক্রাফটন’। এছাড়া ভারতীয় গেমারদের জন্য বিশাল ক্লাউড সার্ভিসের কথা চিন্তা করছে পাবজি। অন্যদিকে কিছু হাই প্রোফাইল স্ট্রিমার জানিয়েছে, মূলত ভারতে আসন্ন দীপাবলি উৎসবকে কেন্দ্র করে পুনরায় দেশটিতে ফিরতে যাচ্ছে পাবজি মোবাইল। প্রসঙ্গত, ব্যান হওয়ার সময় ভারতে পাবজির অ্যাক্টিভ মান্থলি ইউজারের সংখ্যা ছিল প্রায় ৫০ মিলিয়ন।

অফিসিয়াল প্রেস রিলিজে গ্রামরদের উদ্দেশ্যে পাবজি কর্তৃপক্ষ লিখেছে, “এই অপ্রতিরুদ্ধ ও সংকটের সময়ে আমাদের পাশে থাকার জন্য এবং সাপোর্ট করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ। আমরা জানি ভারতে বিগত বছরে গেমিং কমিউনিটিতে এক বপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে, আমরা ই-স্পোর্টস এর এই জনপ্রিয়তা ও ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই। ভারতে গেমারদের জন্য আরও ভালো পরিবেশ ও সুযোগ তৈরী করতে আগামীতে এখানে আমরা বড় বড় ইভেন্ট ও টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনাও করছি। যেখানে থাকবে বিপুল পরিমানের প্রাইজ পুল জেতার সুযোগ।”

মূলত পাবজি মোবাইল কিংবা অন্যান্য চাইনিজ অ্যাপের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, গেমটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ইউজারদের ডেটা সংরক্ষণ করছে এবং বাইরের দেশে তথ্য পাচার করছে। তবে শুরু থেকেই পাবজির দক্ষিণ কোরিয়ান মালিক সংস্থা দাবি করে আসছে যে, তারা সবসময় ইউজারের ডেটা সুরক্ষিত রাখার চেষ্টা করে এবং ভারতের সমস্ত ডেটা প্রোটেকশন আইন বা বিধিবিধানকে মেনে চলে। তাই গেমটির থেকে কোনোরকম আশঙ্কা নেই। এমনকি পাবজি কর্পোরেশন, টেনসেন্টকে ভারতের সার্ভারের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয় এবং সংস্থাটির সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে।

বন্ধুদের সাথে পোস্টটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂

ক্রেডিট 




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post