iPhone 13-এ নতুন ব্যাটারী টেকনোলজি ব্যবহার করবে অ্যাপল

 

স্মার্টফোনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কম্পোনেন্টগুলোর মধ্যে অন্যতম পার্টস হচ্ছে ব্যাটারী ক্যাপাসিটি ও পারফর্মেন্স। অন্যান স্মার্টফোন কোম্পানিগুলো ধারাবাহিক ভাবে নিজেদের ফোনের ব্যাটারী লাইফ বাড়ানোর জন্য বড় ক্যাপাসিটির সেল ব্যবহার করছে, সেখানে মার্কিন জায়ান্ট অ্যাপল ক্রমাগতই কম ব্যাটারী ব্যবহার করছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের iPhone 12 সিরিজেও iPhone 11 এর তুলনায় কম ক্যাপাসিটির ব্যাটারী দিয়েছে অ্যাপল। গুঞ্জন রয়েছে, আগামী বছরের আসন iPhone 13 সিরিজে আরও ছোট ব্যাটারী ব্যবহার করবে অ্যাপল।

যদিওবা শোনা যাচ্ছে, আসন্ন আইফোনে ব্যাটারীর সাইজ ও ক্যাপাসিটি কম করলেও ব্যাটারী ব্যাকআপ বাড়ানোর জন্য নতুন ব্যাটারী টেকনোলজি ব্যবহার করবে অ্যাপল। বিখ্যাত প্রযুক্তি বিশ্লেষক ‘মিং চিং কুয়ো’ জানিয়েছেন, অ্যাপল তাদের পরবর্তী আইফোনগুলোর ব্যাটারী প্রোডাকশনে নতুন প্রিন্টেড সার্কিট বোর্ড ব্যবহার করবে। অ্যাপলের জন্য এই ব্যাটারীগুলো উৎপাদন করবে জিয়ালিয়ানি নামের একটি তাইওয়ান ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান।

 

‘মিং চিং কুয়ো’ আরও বলেন, মূলত সফট বোর্ড ব্যাটারির মধ্যে লেয়ারের পরিমাণ কম কম থাকায় এতে কম স্টোরেজে অধিক শক্তি সঞ্চয় করে রাখা যায়। তাছাড়া এ ধরণের ব্যাটারী উৎপাদনও খুবই সাশ্রয়ী। শোনা যাচ্ছে আগামী বছরের আইফোনে ব্যবহৃত প্রোসেসরটাও এনার্জি এফিশিয়েন্ট হবে, যা iPhone 13 সিরিজকে অনেকটাই পাতলা করে তুলবে। বলা হচ্ছে, অ্যাপলের নতুন লিকুইড ক্রিস্টাল পলিমার টেকনোলজি ব্যাটারির আকৃতি কমিয়ে ফোনের বেটার ব্যাটারি লাইফ নিশ্চিত করবে।

iPhone 13 রিউমারড স্পেক্স;

  • ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট
  • এ১৫ বায়োনিক চিপসেট
  • ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট
  • ৮ জিবি র‍্যাম
  • কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা
  • উন্নত ৫জি কানেক্টিভিটি

যদিও এখনো পর্যন্ত iPhone 13 সিরিজের দাম নিয়ে বিস্তারিত ভাবে কিছু বলা না গেলেও আপকামিং iPhone 13 mini এর দাম নুন্নতম ৯০০ ডলার (প্রায় ৭৫,০০০ টাকা) থেকে শুরু হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post