ফিচার ফোন বাজারে শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে আইটেল

 

স্মার্টফোনের শিল্পের কারণে একসময়ের প্রভাবশালী ফিচার ফোন শিল্প এখন অনেকটাই হারিয়ে যেতে বসেছে। তবে এখনও কিছু বিভিন্ন বৃহৎ মোবাইল ব্র্যান্ড এখন ফিচার ফোন বাজারে আনছে, কারন উন্নয়নশীল, অনুন্নত এবং উন্নত দেশগুলিতে এখনো ব্যাপক চাহিদা রয়েছে ফিচার ফোনের। সম্প্রতি একটি নতুন প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে যেখানে বলা হয়েছে, বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং এখন বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম ফিচার ফিচার ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান।

কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চ এর রিপোর্ট অনুযায়ী, এই দক্ষিণ কোরিয়ান এই টেক জায়ান্ট ২০২০ এর তৃতীয় প্রান্তিকে ৭.৪ মিলিয়নের বেশি ফিচার ফোন সরবারহ করেছে স্যামসাং, যার মাধ্যমে কোম্পানিটি টেকনোর সাথে বাজারের তৃতীয় স্থান ভাগ করে নিয়েছে। উভয় ব্র্যান্ডই বৈশ্বিক বাজারের ১০ শতাংশ শেয়ার দখল করে রেখেছে। এক্ষেত্রে ভারত, স্যামসাংয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বাজার হিসেবে বিবেচিত হয়েছে, কারণ উল্লিখিত সময়ে দেশটিতে স্যামসাংয়ের ১৮% শেয়ার ছিল।

 

অন্যদিকে চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে বিশ্বজুড়ে সর্বাধিক ফিচার ফোন সরবারহ করে ২৪ শতাংশ মার্কেট শেয়ার নিয়ে তালিকার শীর্ষ স্থান দখল করেছে ট্রানশান হোল্ডিংস মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান আইটেল। অপরদিকে আইটেলের পর বৈশ্বিক বাজারে ১৪ শতাংশ মার্কেট শেয়ার নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে নোকিয়া (এইচএমডি গ্লাবল)। এছাড়া ভারতীয় কোম্পানি লাভা এখন বিশ্ববাজারে পঞ্চম বৃহত্তম ফিচার ফোন ব্র্যান্ড।

রিপোর্ট বলছে, তবে বাজারে চাহিদা সত্ত্বেও দিনদিন ফিচার ফোন উৎপাদন হ্রাস পাচ্ছে। বড় শিল্প হওয়া সত্ত্বেও, ২০১২ সালের একই সময়ের তুলনায় জুলাই ও সেপ্টেম্বর ২০২০ এর মধ্যে বৈশ্বিক বাজারে স্মার্টফোনে শিপমেন্ট ১৭ শতাংশ কমেছে। একইভাবে উত্তর আমেরিকাতেও ফিচার ফোনের শিপমেন্ট বছরে ৭৫ শতাংশ কমেছে।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post