কোয়ালকম লঞ্চ করেছে নতুন ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০

 

অনেক জল্পনা কল্পনার পর মার্কিন মোবাইল চিপসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কোয়ালকম বছরের শুরুতেই লঞ্চ করলো আরও একটি নতুন ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট।  ডিসেম্বরে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ লঞ্চ করার কিছুদিনের মধ্যেই কোয়ালকম এবার কোয়ালকম অ্যানাউন্স করেছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ (কোডনেম SM8250-AC)। নতুন স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ চিপসেটটি মূলত গত জেনারেশনের ফ্ল্যাগশিপ স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ এর ওভারক্লকড ভার্সন। স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ এর মতই এটিও ৭ ন্যানোমিটার ফ্যাব্রিকেশনে তৈরি।

স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ উন্মোচনের সাথে সাথে একটি নতুন রেকর্ড ও তৈরি করেছে কোয়ালকম। প্রাইম কোরে ৩.২ গিগাহার্জ ক্লক স্পিড নিয়ে এই চিপসেটটি এখন যেকোনো স্মার্টফোন প্রসেসরে সর্বোচ্চ ক্লকস্পিডের অধিকারী। এর আগে ৩.১৩ গিগাহার্জ নিয়ে এই রেকর্ডটি ছিলো হুয়াওয়ের কিরিন ৯০০০ চিপসেটের। স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০’তে ব্যবহার করা হয়েছে ক্রায়ো ৫৮৫ কোর যেটি এ‌আরএম এর Cortex A77 এর উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ এও একই সিপিইউ কোর ব্যবহার করা হয়েছিলো। এমনকি দুটি প্রসেসরেই অ্যাড্রেনো ৬৫০ জিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে।

 

এছাড়া স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ এর মত স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ এর ইমেজ সিগনাল প্রসেসর (আইএসপি) ও বিল্ট ইন ৫জি মডেম একই রাখা হয়েছে। তাছাড়া গেমারদের আনুকূল্যে স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ প্রসসরে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন এলিট গেমিং টেকনোলজির পাশাপাশি এতে আরও থাকছে কোয়ালকমের ফিফথ-জেনারেশন AI ইঞ্জিন রাখা হয়েছে। ক্লকস্পিড ছাড়া স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ তুলনায় স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০-এ একমাত্র পার্থক্য হচ্ছে এর ব্লুটুথ ৫.২ সাপোর্ট

যদিও স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ চালিত স্মার্টফোন না আসা পর্যন্ত এখনো পর্যন্ত স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ এর সাথে পার্থক্য বলা যাচ্ছে না। এদিকে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে যে স্ন্যাপডাগন ৮৭০ বেসড প্রথম ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন হতে পারে ২৬ জানুয়ারি চীনে লঞ্চ হতে যাওয়া মোটোরোলার আপকামিং Motorola Edge S। ইতিমধ্যে বিভিন্ন সুত্র থেকে জানা গিয়েছে মটোরোলা, শাওমি , ওয়ানপ্লাস , ভিভো এই চিপসেটটি প্রাথমিকভাবে ব্যবহার করতে যাচ্ছে।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post