স্মার্টফোন ব্যবসা বিক্রি করে দিতে চায় এলজি

এক সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় ও বৃহত্তম স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এলজি এখন আর আগের মতো নেই, সকলেরই জানা কথা। বিগতবছর গুলোতে চীনে ব্র্যান্ডগুলোর আবির্ভাবে নতুন করে ঘুরে দাঁড়াতে না পেরে ধীরে ধীরে যেন পিছিয়ে পড়ছে দক্ষিণ কোরিয়ান এই প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি, সাধারণ জনগণের পাশাপাশি কোম্পানি নিজেও তা আঁচ করতে পারছে। তাই তো এবার সামনে এসেছে নতুন একটি খবর, যেখানে বলা হচ্ছে, স্মার্টফোন ব্যবসা থেকে সরে যেতে পারে এলজি। মূলত কোম্পানির অব্ভন্তরীন সূত্র থেকে এমনই একটি ইঙ্গিত এর খবর লিক হয়েছে গণমাধ্যমে।

সম্প্রতি বিজনেস কোরিয়ার একটি রিপোর্ট থেকে জানা যায় যে, কিছুদিন আগে একটি ইন্টারনাল মেমো পাঠিয়েছেন এলজি এর সিইও ‘কেও বং-সেক’। আর ওই ইন্টারনাল মেমোটিতে লিখা ছিল যে, আগামীতে কোম্পানির কঠিন সিদ্ধান্ত কিংবা মালিকানা রদবদল হলেও কর্মীরা তাদের পদ থেকে চাকরিচ্যুত হবে না। এরই ধুতরো ধরে আরও বেশ কিছু নির্ভিরযোগ্য সোর্স থেকে জানা গিয়েছে, আসন্ন ২০২২ সল্ নাগাদ নিজেদের স্মার্টফোন বিভাগের মালিকানা বিক্রি করে দিতে যাচ্ছে এলজি।

এদিকে ইতোমধ্যে এলজি এর স্মার্টফোন ব্যবসা কিনে নিতে আগ্রহ দেখিয়ে কোম্পানির সাথে আলোচনা করছে ভিনগ্রূপ কর্পোরেশন নামের একটি ভিয়েতনামি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। শোনা যাচ্ছে, ভিনগ্রূপ কর্পোরেশন অফার নিয়ে পর্যালোচনা করছে এলজি। ধারণা করা হচ্ছে সব কিছু ঠিক থাকলে আগামীতে যুক্তরাষ্ট্র সহ বৈশ্যি বাজারে এলজি এর স্মার্টফোন বিভাগের মালিকানা কিনে নিতে যাচ্ছে ভিনগ্রূপ কর্পোরেশন। বলে রাখি, ২০১৮ সালে বাজারে এসে VinSmart নামের ব্র্যাডের অধীনে নিজস্ব স্মার্টফোনও উদপাদন করছে ভিনগ্রূপ কর্পোরেশন। এখন দেখার বিষয় হচ্ছে আদৌ ফাইনাল হয় কিনা এই ডিলটি।

সত্যি কথা বলতে এটা ভেবে খুবুই অবাক লাগছে যে, এলজি এর মতো এতো বড় একটি টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান অবশেষে স্মার্টফোন বাজারে ব্যর্থতার ছাপ ছেড়ে যাচ্ছে। গত কয়েক বছরে এলজি এর মিড-রেঞ্জ ফোনগুলো কিছু আশা দেখালেও এর ফ্লাশিপ ও প্রিমিয়াম মডেলগুলো অ্যাপল কিংবা স্যামসাংয়ের সাথে টিকতেই পারেনি। এ সময়ে রোলেবল ফোন বেশি সহ বেশ কিছু উদ্ভাবনী ফোন প্রদর্শিনী করলেও বাজারে খুব বেশি সফলতা পায়নি এলজি।




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post