নিজেদের স্মার্টওয়াচ আনছে ফেসবুক

 

আপনি হয়তো জানেন যে, সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুকের ব্যবসা বলতে গেলে কেবল সফটওয়্যার জগতেই সীমাবদ্ধ। তবে মাঝেমধ্যে ফেসবুকও হার্ডওয়্যার জগতে কিছুটা উঁকি মেরে যায়। ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি এর উত্থানের সময় ফেসবুকের অঙ্গসংগঠন অকুলাস নিয়ে আসে তাদের ভি‌আর হেডসেট। আর এই ডিভাইজটি নিয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও ইতিবাচক সারা পায় তারা।

এরই ধারাবাহিকতায় আরেকটি হার্ডওয়্যার পণ্য বাজারে আনার পরিকল্পনা করছে ফেসবুক। ভি‌আর হেডসেট এর পর এবার সম্ভবত নিজস্ব ব্র‍্যান্ডের স্মার্টওয়াচ বাজারে আনতে যাচ্ছে ফেসবুক। এই বছরের শুরুর দিকেই প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা ধারণা করেছিলেন, ২০২০ সালে ওয়্যারলেস ইয়ারফোন রাজত্ব করার পর ২০২১ সালটি স্মার্টওয়াচের দখলে যেতে চলেছে। সুতরাং এর উপর ভিত্তি করেই সম্ভবত ২০২১ সালে নিজস্ব ব্র‍্যান্ডের স্মার্টওয়াচ আনতে যাচ্ছে ফেসবুক। আসন্ন এই স্মার্টওয়াচটির নাম হতে পারে ‘ফেসবুক ওয়াচ’।

 

মূলত সোশ্যাল মিডিয়া কানেক্টিভিটি’কে কেন্দ্র করে এই স্মার্টওয়াচটি ডিজাইন করা হবে। বিশেষ করে মেসেঞ্জার এবং হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের জন্য বিশেষ সুবিধা পাওয়া যাবে ফেসবুকের আপকামিং এই স্মার্টওয়াচটিতে। একটি রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে ফেসবুক ওয়াচে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকবে অ্যান্ড্রয়েড ওয়্যার ওএস। তবে ২০২৩ সাল নাগাদ স্মার্টওয়াচের জন্য নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম ডেভেলোপ করতে করে ফেলবে ফেসবুক।

এছাড়া এতে কানেক্টিভিটির জন্য ব্লুটুথের পাশাপাশি থাকতে পারে ই-সিম সাপোর্ট। যা এর আগেও অ্যাপল ওয়াচে দেখা গিয়েছে। ই-সিম সাপোর্ট এর সবথেকে বড় সুবিধা হলো স্মার্টফোনের সাহায্য ছাড়াও স্মার্টওয়াচটি স্বাধীনভাবে চালানো সম্ভব হবে। এসব কিছুর পাশাপাশি এতে সাধারণ ফিটনেস ট্র‍্যাকারের সুবিধা (পালস অক্সিমিটার, স্লিপ মনিটরিং, প্যাডোমিটার ) তো থাকছেই।

উল্লেখ্য, ফেসবুক ওয়াচের এখনো অফিশিয়াল কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি। এমনকি এই স্মার্টওয়াচ সম্পর্কিত কোনো লিকস ও এখনো প্রকাশ হয়নি। তাই এটি আদৌ বাজারে আসবে কিনা তা এখনো নিশ্চিত করে বলার সুযোগ নেই।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post