নিজস্ব গাড়ি আনার ব্যাপারে নিশ্চিত না শাওমি

 

ব্যক্তিগত পরিবহন ব্যবস্থার সবথেকে বড় পরিবর্তন আসতে চলেছে সম্ভবত এই দশকেই। জীবাশ্ম জ্বালানিকে বাদ দিয়ে মানুষ এখন ফুল ইলেকট্রিক এবং হাইব্রিড (ফুয়েল এবং বিদ্যুৎ দুটো মাধ্যমেই সচল) গাড়ির দিকে ঝুঁকছে। পরিবেশ দুষন রোধের পাশাপাশি সামগ্রিক খরচ অপেক্ষাকৃত কম হওয়ায় এর জনপ্রিয়তাও দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। গত দশকে এলন মাস্কের কোম্পানি টেসলা এর হাত ধরে অনেকটা বাণিজ্যিকভাবে বৈদ্যুতিক গাড়ি প্রচলনের শুরু হলেও এই ধারাবাহিকতায় আরও অনেক গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি এই তালিকায় নাম লিখিয়েছে।

এমনকি টেক জায়ান্ট অ্যাপল ও হুয়াওয়েও ইতোমধ্যে নিজস্ব ইলেকট্রিক গাড়ি আনতে কাজ শুরু করে দিয়েছে। অন্যদিকে অনেক দিন আগেই বিভিন্ন মাধ্যমে একটি সংবাদ ফাঁস হয় যে, শাওমিও খুব দ্রুতই নিজস্ব ইলেকট্রিক গাড়ি আনতে চলেছে। তবে এ ব্যাপারে খোলাসা করে শাওমি কর্তৃপক্ষ নিজেই জানিয়েছে যে, নিজেদের ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারে আনার তথ্যটি মোটেও সত্য নয়। টেকসিনা এর রিপোর্টে বলা হয়েছে, সম্প্রতি শাওমি সংক্রান্ত এসকল গুজবের উত্তরে কোম্পানি অফিশিয়াল প্রেস নোট রিলিজ করে।

 

“শাওমির নিজস্ব ইলেকট্রিক গাড়ি তৈরি সংক্রান্ত তথ্যের সত্যতা” শিরোনামের ওই প্রেস নোটটিতে শাওমি জানিয়েছে, তারা এখনো নিজস্ব গাড়ি তৈরির জন্য প্রস্তুত নয়। তবে বাজারে ক্রমবর্ধমান ইলেকট্রিক গাড়ির চাহিদাও শাওমি কর্তৃপক্ষের নজরে রয়েছে। উল্লেখ্য, শাওমি ইলেকট্রিক গাড়ি সংক্রান্ত গুঞ্জন এবারই প্রথম নয়। ২০১৪ সালেও হঠাৎ করেই শাওমির ইলেকট্রিক গাড়ি সংক্রান্ত লিকস এবং কনসেপ্ট রেন্ডার প্রকাশ পেয়েছিলো।

এমনকি এর আগে ২০১৩ সালে টেসলা প্রধান ইলন মাস্কের সঙ্গে দেখা করার উদ্দেশ্যে দুই বার যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়েছিলেন শাওমি প্রতিষ্ঠাতা লেই জুন। কিন্তু এরপর দীর্ঘদিন পার হলেও শাওমি এমন কোনো উদ্যোগ নেয়নি। তবে ২০২১ সালে এসে বিভিন্ন স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানির ইলেকট্রিক গাড়ি নিয়ে আগ্রহ শুরু হলে আবারও গুঞ্জনটি মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। এখন দেখার পালা শাওমি আদৌ ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারজাত করে কিনা।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post