টেলিগ্রাম: জানুয়ারি মাসে সর্বাধিক ডাউনলোড হওয়া মোবাইল অ্যাপ

 

গত মাসে ফেসবুক মালিকানাধীন বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ম্যাসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপের নতুন প্রাইভেসি পলিসি কে কেন্দ্র করে হঠাৎ করেই ধ্বস নেমে আসে অ্যাপটির জনপ্রিয়তায়। এই সুযোগে হোয়াটসঅ্যাপের জায়গা দখল করে নেয় এর বিকল্প সিকিউরড ম্যাসেজিং অ্যাপ টেলিগ্রাম এবং সিগনাল। সেন্সর টাওয়ার এর লেটেস্ট প্রতিবেদন অনুযায়ী নন-গেমিং অ্যাপ ডাউনলোডের তালিকায় তালিকায় টেলিগ্রাম এখন শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছে। অন্যদিকে, একসময় শীর্ষে থাকা হোয়াটসঅ্যাপের অবস্থান এখন পঞ্চম।


রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০২১ সালের কেবলমাত্র জানুয়ারি মাসেই ৬৩ মিলিয়ন বার ডাউনলোড হয়েছে টেলিগ্রাম অ্যাপটি। যা ২০২০ সালের জানুয়ারির তুলনায় ৩.৮ শতাংশ বেশি। সেন্সর টাওয়ার এর রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে মূলত ভারত এবং ইন্দোনেশিয়ার ব্যবহারকারীরাই এই ডাউনলোডে নেতৃত্ব দিয়েছেন। ৬৩ মিলিয়ন ডাউনলোডের প্রায় ২৪ শতাংশই ভারত থেকে হয়েছে। অন্যদিকে ইন্দোনেশিয়াতে হয়েছে ১০ শতাংশ ডাউনলোড।

 

চটি বছরের জানুয়ারিতে সর্বাধিক ডাউনলোড হওয়া ম্যাসেজিং অ্যাপের তালিকায় টেলিগ্রামের পরই রয়েছে সিগনাল, যার অবস্থান এখন ৩য়। হোয়াটসঅ্যাপ ইস্যুকে কেন্দ্র করে এলন মাস্কের একটি টুইটের পরই আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা পায় অ্যাপটি। সেন্সর টাওয়ার এর রিপোর্ট অনুযায়ী, এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে জনপ্রিয় শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক। টিকটক র ঠিক পরেই যথাক্রমে অবস্থান করছে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রাম।

যদিও আচমকা টেলিগ্রাম এবং সিগন্যাল এর আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা পাওয়ার ব্যাপারটি বেশ আগে থেকেই অনুমান করা হয়েছিলো। বিশেষ করে টেলিগ্রামে হোয়াটসঅ্যাপের মতো থার্ড পার্টি অ্যাপ থেকে ম্যাসেজ এবং মিডিয়া মাইগ্রেশনের সুবিধাটি অ্যাপটিকে আরও জনপ্রিয় করে তোলে। এখন দেখার অপেক্ষা হোয়াটসঅ্যাপ তার হারানো রাজ্য ফিরে পেতে কি পদক্ষেপ নেয়।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post