৫০০ কোটি ডলার জরিমানা গুনতে হবে গুগলকে

Daraz Ad Daraz Ad

দীর্ঘদিন আগেই ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহের গুরুতর অভিযোগ উঠেছিল মার্কিন টেক জায়ান্ট গুগলের বিরুদ্ধে। এমনকি গুগলের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগে আরও উঠেছে যে,  তারা ইনকগনিটো মোডেও ব্যবহারকারীর ওপর নজর রাখছে। অবশেষে এবার প্রমাণ মিলতেই বড় অংকের  জরিমানা গুণতে হলো গুগলকে। ইতিমধ্যেই ৫০০ কোটি ডলার জরিমানার মুখে পড়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও জনপ্রিয় এই সার্চ ইঞ্জিন প্রতিষ্ঠানটি।

ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করে ওয়েবসাইট দেখার সময় ব্যবহারকারীর তথ্য সংগ্রহ করতে পারে গুগল। এমনকি নিজের ব্যক্তিগত তথ্য আড়ালে রাখতে ইচ্ছুক ব্যবহারকারী যদি নিজের তথ্য প্রকাশ করতে না চান, তবে তাকে ‘ইনকগনিটো মোড’ ব্যবহার করতে বলা হয়। এবার সেই ‘ইনকগনিটো মোড’-এও ইনফরমেশন ট্র্যাকিংয়ের অভিযোগ উঠল গুগলের বিরুদ্ধে।

Daraz Ad Daraz Ad

অতএব মামলা এড়ানোর কার্যত আর কোনো পথই খোলা নেই গুগলের কাছে। এদিকে গুগল অবশ্য ওই মামলা খারিজ করে দেয়ার আবেদন জানিয়েছিল। কিন্তু বিচারক লুসি কোহ প্রতিষ্ঠানটির সে আবদারে সাড়া দেননি।  বিচারক কোহ বলছেন, ইনকগনিটোর গোপনতা মোড সক্রিয় থাকলেও গুগল যে ব্যবহারকারীদের ডেটা সংগ্রহ করছে, সে ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানটি তাদের ‘অবহিত করেনি’। এই মামলায় অভিযোগকারীদের পক্ষে ৫০০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে বলেও জানা যাচ্ছে।

এর পরেই  মূলত গত বছরের জুন তিন ব্যবহারকারী গুগলের বিরুদ্ধে এই মামলা করেন। গুগলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল যে, ব্যবহারকারীদের তথ্য সংগ্রহ করে ঘুরপথে তৃতীয় পক্ষের কাছে বিক্রি করে ব্যবসা করছে তারা।

বন্ধুদের সাথে নিউজটি শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা অনুপ্রাণিত হব 🙂

Daraz Ad Daraz Ad

ক্রেডিট




যেকোনো সমস্যা হলে গ্ৰুপে পোস্ট করলে অথবা পেজে মেসেজ দিলে সমাধান পেয়ে যাবেন 🔥🌺♥️🍀🌷
আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য,

Comment

Previous Post Next Post